বাংলাদেশে ভিক্ষাবৃত্তিঃ কারণ ও প্রতিকার

ভিক্ষা শব্দের আভিধানিক অর্থ-যাচিত বস্তু, প্রার্থনা, সাহায্য চাওয়া। ভিক্ষাবৃত্তি মানে ভিক্ষার মাধ্যমে জীবনধারণ। আর যারা নিজের অক্ষমতা ও অসামর্থ্যের কথা অন্যের কাছে অকপটে ব্যক্ত করার মাধ্যমে সাহায্য নিয়ে জীবিকানির্বাহ করে-তারাই ভিক্ষুক। ঠিক কবে থেকে ভিক্ষাবৃত্তির প্রচলন হয়েছে, তা বলা সম্ভব … বিস্তারিত

 118 total views

ইসলাম ও গণতন্ত্রের মূলনীতির মধ্যে কোন বিরোধ নেই

পিটিভির মুখোমুখী জাভেদ আহমাদ ঘামিদি [এটি মূলত পাকিস্তানের বহুল আলোচিত ইসলামি চিন্তাবিদ, আল বায়ান তাফসিরের লেখক, পাকিস্তান সরকারের কাউন্সিল অফ ইডীওলজি এর সাবেক সদস্য, আল মাওরিদ ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন জাভেদ আহমাদ ঘামিদি সাহেবের পাকিস্তানের বহুল জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল পিটিভি-কে দেওয়া একক … বিস্তারিত

 101 total views

নবুওয়্যাত ও রিসালাত

নবুওয়্যাত ও রিসালাতের অলঙ্কারে বিভূষিত হবার এক মিনিট আগেও যিনি নবী হবেন তার জানা থাকেনা। মাওলানা আমিন এহসান ইসলাহী যথার্থই বলেছিলেন যে “রিসালাত ও নবুয়াত হচ্ছে মোহাব্বতে রব্বানী” বা আল্লাহর ভালোবাসা ও অনুগ্রহ এবং তা সম্পূর্ণ আল্লাহর এখতিয়ার যখন যাকে চান আল্লাহ … বিস্তারিত

 75 total views

শুভ্র হৃদয় ও অনন্ত জীবনের চুড়ান্ত সফলতা

(Repost) হৃদয় বা হার্ট (আরবিতে “ক্বল্ব বা বহুবচনে কুলুব” ) নিয়ে চিন্তা করতে গিয়ে মনে প্রশ্ন জাগলো মানব দেহের রুহ আসলে কি?  পবিত্র কোরআনে দেখি এ প্রশ্নের উত্তর জানতে আমাদের নবীজিকে যখন প্রশ্ন করা হয়েছিল তখন আল্লাহ পাক পরিস্কার জানিয়ে … বিস্তারিত

 76 total views,  1 views today

ইসলামে মুনাফিক

‘মুনাফিকুন’ এক প্রকার কীটের নাম। এই কীট সৌদি আরবের মরুভূমিতে দু’মুখ ওয়ালা গর্ত তৈরী করে  সেই গর্তে এরা বাস করে, যাতে এক মুখ আক্রান্ত হলে আরেক মুখ দিয়ে অনায়াসে বেরিয়ে যেতে পারে। মানুষ মুনাফিকের সাথে হুবহু মিল। মুনাফিকরাও দু’মুখ ওয়ালা চেহারা বিশিষ্ট। … বিস্তারিত

 52 total views

আল্লাহর আদেশ আর আমাদের কৌশল

মানুষ সৃষ্টির সেরা, আশরাফুল মাখলুকাত। মহান রাব্বুল আলামিন আঠার হাজার মাখলুকাতের মধ্যে সর্ব শ্রেষ্ঠ করে সৃষ্টি করেছেন মানুষকে। তিনি মানব সৃষ্টির অনেক অনেক আগে জ্বীন জাতিকে সৃষ্টি করেছেন  আগুনের শিখা থেকে, তাইতো তারা মানুষের দৃষ্টির বাইরে। আল্লাহ সোবহানাল্লাহ তায়ালা আল … বিস্তারিত

প্যারাডক্সিক্যাল_সাজিদ (তৃতীয় পর্ব)

⭐ আল-কুরআন কি মানব-রচিত? বিরাট আলিশান একটি বাড়ি। মােগল আমলের সম্রাটেরা যেরকম বাড়ি বানাত, অনেকটাই সেরকম। বাড়ির সামনে দৃষ্টিনন্দন একটি ফুলের বাগান। বাগানের মাঝে ছােট ছােট কৃত্রিম ঝরনা আছে। এই বাড়ির মালিকের রুচিবােধের প্রশংসা করতেই হয়। ঝঞাট ঢাকা শহরের মধ্যে … বিস্তারিত

মুসলমান

  আমরা মুসলমান। আমরা সেই মুসলমান। যারা একদা পৃথিবীর বুকে শির চির উন্নত করে তুলেছিলো –  আমরা তাদেরই বংশধর – আমরা সেই মুসলিম। যে মুসলিমের হুঙ্কারে থর্‌ থর্‌ করে কাঁপতো ব্রক্ষ্মান্ড,  ভীত   সন্ত্রস্থ হতো ধরণীর শাসক-মন্ডলী, শির নোয়াত আরবের দুর্দন্ত … বিস্তারিত

কোরআনকে বুঝা নিয়ে কিছু কথা

সাধারণ দৃষ্টিতে কোন পাঠক কুরআন খুললে হয়তবা দেখতে পাবে এতে অনেক রিপিটেশন, বারবার একই ধরণের কথা ও আখেরাতের ভয় ভীতি, কিছু নির্দেশ কিছু কাহিনী, বিশ্ব সৃষ্টি ও মানব সৃষ্টি সম্পর্কে অতি সংক্ষিপ্ত কিছু তথ্য বা কথা। কিংবা সে দেখবে গতানুগতিক … বিস্তারিত

কোরানের আলোকে ইসলামের ইতিহাস (১)

ফেরাউনের সন্ধানে যারা সত্যকে সত্যের মানদন্ড না ভেবে প্রসিদ্ধ লোকের কথাকে সত্যের মানদন্ড ভাবে , তাদের পক্ষে সত্য জানা কষ্টকর••• জেরাল্ডম্যসি , মিশর বিশেষজ্ঞ।  ভূমিকা•••• আমরা মুসলমানেরা বিশ্বাস করি কোরান আল্লাহর বই। আল্লাহর বাণী যেহেতু মিথ্যা হতে পারেনা , সে কারনে এই বইয়ে কোরানের আয়াতকে আমরা সত্যের মানদন্ড ভেবে নিয়ে ইসলামের সত্য ইতিহাস জানার চেষ্টা করব। কোরানের শুরু থেকে মানুষকে যে জ্ঞান শেখানো হয়েছে তার একটি হলো , মানুষ ছাড়াও আরো সত্বা বা শক্তি আছে যারা মানুষের মতোই বুদ্ধিমান, অনুভূতিসম্পন্ন ও স্বাধীন ইচ্ছার অধিকারী।এমনি একটি সত্বা , যাকে আমরা শয়তান বলে জানি, জেনে শুনে অহঙ্কার বশত আল্লাহর উপস্থিতীতে আল্লাহর আদেশ অমান্য করার ধৃষ্ঠতা দেখিয়েছিল। {সে বললঃ  দেখুন তো, ইনিই সে ব্যক্তি, যাকে আপনি আমার চাইতেও  উচ্চ মর্যাদা দিয়ে দিয়েছেন। ।যদি আপনি আমাকে কেয়ামত দিবস পর্যন্তসময় দেন, তবে আমি সামান্য সংখ্যক ছাড়া তার বংশধরদেরকে সমূলে নষ্ট করে দেব।১৭:৬২}   এটা পরিস্কার যে, আদমের বংশধরদের সমূলে বিনষ্ট করে দেয়ার শয়তানের এই শপথকে খাটো করে দেখা মানব সমাজের উচিৎ হবে না। {সে বলল, আপনার ইযযতের কসম, আমি অবশ্যই তাদের সবাইকে বিপথগামী করে দেব। ৩৩:৮২}  শয়তান যে ফাকা বুলি আওড়ায়নি এবং সে যে তার শপথ পুরনে সক্ষম তার প্রমান আমরা পাই এই আয়াতদ্বয়ে।{আপনি যতই চান, অধিকাংশ লোক বিশ্বাসকারী নয়। অধিকাংশ মানুষ যারা আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করে, কিন্তু সাথে সাথে শিরকওকরে। ১২:১০৩,১০৬}                শয়তান মানুষের প্রকাশ্য শত্রু। সে কসম খেয়েছে কেয়ামত পর্যন্ত আদমের বংশধরকে বিপথগামি করেই যাবে। শয়তানের চক্রান্ত থেকে বাচানোর লক্ষ্যে আল্লাহ মানব সমাজের শুরু থেকেই বিভিন্ন নবি ও রসূলের মাধ্যমে  ঐশীগ্রন্থ পাঠিয়ে শয়তানের পরিচিতিও লক্ষ্য সম্পর্কে মানুষকে অবহিত করেছেন এবং হেদায়েত করেছেন।{আমরা বল্লাম, তোমরা সবাই  নেমে যাও এখান থেকে। অতঃপর যখন তোমাদের নিকট আমার পক্ষ থেকে কোন হেদায়েত  পৌঁছে, তবে যে ব্যক্তি আমার সে হেদায়েত অনুসারে চলবে, তার উপর না কোন ভয় আসবে, না তাকে দুঃখ করা লাগবে। ২:৩৮,  তিনি বললেনঃ তোমরা উভয়েই এখান থেকে এক সঙ্গে নেমে যাও।তোমরা একে অপরের শত্রু।এরপর যদি আমারপক্ষ থেকে তোমাদের কাছে হেদায়েত আসে, তখন যে আমার বর্ণিত পথ অনুসরণ করবে, সে পথভ্রষ্ঠ হবে না এবং কষ্টে পতিত হবে না। ২০:১২৩} পার্থিব জীবণের শুরু থেকেই  মানুষকে আল্লাহর হেদায়েত প্রাপ্তিতে বাধা সৃষ্টির লক্ষ্যে বা হেদায়েতকে অকার্যকর করার জন্য শয়তান উর্ধজগতের সাথে মানুষের যোগাযোগের মাধ্যমে অনুপ্রবেশ ও আড়িপাতার চেষ্টা করেছে।  { নিশ্চয় আমি নিকটবর্তী আকাশকে তারকারাজির দ্বারা সুশোভিত করেছি এবং তাকে সংরক্ষিত করেছি প্রত্যেক অবাধ্য শয়তান থেকে। ওরা উর্ধ্ব জগতেরকোন কিছু শ্রবণ করতে পারে না এবং চার দিক থেকে তাদের প্রতি উল্কা নিক্ষেপ করা হয় ওদেরকে বিতাড়নের উদ্দেশে। ওদের জন্যে রয়েছে বিরামহীন শাস্তি। তবে কেউ ছোঁ মেরে কিছু শুনে ফেললে জ্বলন্ত উল্কাপিন্ড তার পশ্চাদ্ধাবন করে।৩৭:৬-১০} আল্লাহর বাণী যাতে অপরিবর্তিতভাবে মানুষের কাছে পৌছায় এবং শয়তান যাতে আঁড়ি না পাত্তে পারে , সে … বিস্তারিত

কোরানের আলোকে নামাজ কি?

কোরানের আলোকে নামাজ কি? এর তাৎপর্য কি ও সঠিক পন্থা কি ?অনেকেই গতানুগতিক ভাবে নামাজ পড়ে কিন্তু, নামাজকে আমরা ঠিকমতো বুঝার চেষ্টা করিনা! একটু খেয়াল করুন নামাজে আমরা কি করি নামাজে আমাদের শারীরিক তিন অবস্থান কে আল্লাহ চিত্রায়িত করেছেন এই … বিস্তারিত

কীসের ভিত্তিতে নারীদেকে মসজিদে যেতে বাধা দেয়া হয়?

ইমাম তাবারানী বর্ণনা করেছেন, “বেলাল ইবনে আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর ইবনুল খাত্তাব (রা) আমার নিকট বলেছেন, একদিন তাঁর বাবা আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রা) তাঁকে বলেছেন, ‘আমি রাসূলকে (সা) বলতে শুনেছি– ‘তোমরা নারীদেরকে মসজিদে যেতে বাধা দিও না।’ বেলাল বললেন, ‘আমি অবশ্যই … বিস্তারিত

ইয়াজুজ-মাজুজ ও জুলকারনাইন প্রসঙ্গ – কোরান ও হাদিসের আলোকে

রহস্যপূর্ণ ও বহুল আলোচিত বিষয় ইয়াজুজ-মাজুজ  ও জুলকারনাইন প্রসঙ্গে কোরান ও হাদিসের আলোকে কুরআনের রহস্যপূর্ণ বিষয় ইয়াজুজ মাজুজ প্রসঙ্গে  সুরাহ আম্বিয়াতে একবার এসেছে  আর একবার সুরাহ কাহাফে অনেকেরই খুব আগ্রহ রয়েছে ইয়াজুজ-মাজুজ ও দাজ্জাল প্রসঙ্গে কোরানে দাজ্জাল প্রসঙ্গটি আসেনি কিন্তু … বিস্তারিত

ইসলামে রোজা বা সিয়াম

রমাদান মাস! যে মাসে কোরআন নাজিল হয়েছে মানবের দিশারি রূপে ও হিদায়াতের সুস্পষ্ট নিদর্শন হিসেবে।  দীর্ঘ দুই মাসে দোয়া ও প্রার্থনা ‘হে আল্লাহ, রজব ও শাবান মাস আমাদের জন্য বরকতময় করুন এবং রমাদান আমাদের নসিব করুন!’ এই আকুল প্রার্থনা কবুল হলো। … বিস্তারিত

বিবর্তন, নাস্তিকতা ও  ইসলাম

বিবর্তন  আসলে  পৃথিবীর  প্রতিটি সৃষ্টির মাঝে বিদ্যমান  এবং সে প্রক্রিয়া চলে আসছে  প্রকৃতির সৃষ্টির শুরু থেকে । বিবর্তন  বিদ্যমান অণু-পরমাণুতে যা অবিশ্বাস করার উপায় নাই  জ্ঞানীদের পক্ষে। এমন কি ভাইরাসের মাঝেও   বিবর্তন  হয়  যেমন  আজকাল চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা  জানিয়েছেন,করোনা ভাইরাসটি  মানুষের … বিস্তারিত

 62 total views