বাংলা লিখার টিউটরিয়েল

বাংলা লিখার উদ্দেশ্যে নিম্নে তিনটি পদ্ধতি দেয়া হল। ইচ্ছানুযায়ী এবং সুবিধা মতো এর যে কোন একটি পদ্ধতির নির্দেশ অনুসরণ করলে অতি সহজে বাংলা লিখা যাবে ।

প্রথমে আপনি  এই লিংক থেকে বা অন্য কোন সাইট থেকে সুলাইমান লিপি (Solaiman Lipi) Download Bangla Font ফন্ট ডাউনলোড করেন। ডাউনলোড করার পর  সে ফাইলটি ওপেন করুন এবং ইনস্টল করুন না করতে পারলে  ফন্টকে কপি করেন । এবার আপনার পিসির স্টার্ট বাটনে যান ক্লিক করেন, সেখান থেকে কন্ট্রোল প্যানেল ক্লিক করে ওপেন করেন, ওপেন করার পর সেখানে ফন্ট ফোল্ডার পাবেন, এই ফন্ট ফোল্ডারে ডাউনলোড করা ফন্ট পেস্ট করেন অর্থাৎC:\windows\Fontsফোল্ডারে পেইস্ট করবেন।

১ম পদ্ধতি: কোন প্রকার প্রোগ্রাম ডাউনলোড বা ইন্সটল না করে  গুগুল ভার্চুয়াল কি বোর্ড ব্যবহার করে বাংলা লিখা সম্ভব সেজন্য ইন্টারনেটে কানেকশন রাখতে হবে অর্থাৎ অনলাইন সংযোগ থাকতে হবে । তারপর এই লিংকে  গিয়ে যে বক্স পাবেন সেখানে ইংলিশ কীবোর্ড দিয়ে টাইপ করে নিতে পারেন। টাইপ করার পর তা কপি করে ব্লগে পেস্ট করে পোস্ট করতে পারবেন।

নিম্নের ফোনেটিক বর্ণ ম্যাপ দেখে বাংলা উচ্চারণ ইংরেজিতে লিখুন। ফোনেটিকে ‘কার’ গুলি ব্যঞ্জনবর্ণের পরে লিখতে হবে । মনে রাখুন, ফোনেটিকে লেখা case sensitive কিভাবে ফোনেটিক বাংলা লিখবেন ? কিছু উদাহরণ:

মুখোশ = mukhosh

আমি = Ami
যুক্তাক্ষর কিভাবে লিখবেন? যুক্তাক্ষর লিখতে দুটি বর্ণের মাঝে একটি ‘+’ চিহ্ন ব্যবহার করুন। মনে রাখুন, ফোনেটিকে লেখা case sensitive. কিছু উদাহরণ:

রাষ্ট্র
= ras+t+ro

মস্ত = mos+To

অর্ক = aor+ko
ফোনেটিক বর্ণ ম্যাপঃ ব্যঞ্জনবর্ণ
ফোনেটিক বর্ণ ম্যাপঃ স্বরবর্ণ, ‘কার’ ও ‘ফলা’

২য় পদ্ধতি:  আপনার পিসিতে অভ্র কি বোর্ড ইন্সটল করে MS Word দিয়ে বাংলা টাইপ করতে পারবেন। অভ্র ইন্সটল করতে এই সাইট  থেকে ইউনিকোড সফট ওয়ার ডাউন লোড করেন। তারপর আপনার পিসিতে ইন্সটল করেন। এই প্রোগ্রামে বাংলা বনান শুদ্ধ করার ব্যবস্থাও আছে।
ইন্সটল করার পর আপনি F12 চাপ দিয়ে লিখতে শুরু করুন। বিন্দাস লিখতে পারবেন বাংলা আবার ইংরেজি লিখতে গেলে F12 তে চাপুন এবার ইংরেজিতে লিখতে পারবেন। তবে অভ্রতে যুক্তাক্ষর লিখতে গেলে আপনাকে এক বাটনে পরপর ২বার চাপ দিতে হবে।

যেমন উদাহরণ ক্ষ টাইপ করবেন= k+k= ক্ষ (+) চাপ দিতে হবেনা।

খ টাইপ করবেন= k+h=খ(+) চাপ দিতে হবেনা।

নং টাইপ করবেন= n+o+n+g = নং হবে।

তবে ই কে ঈ তে পরিবর্তন করতে হলে Shift এ চাপ দিয়ে I তে চাপ দিতে হবে তেমন করে ঈকার টাইপ করতে হলেও একই পন্থা নিতে হবে।

প্র টাইপ করতে হলে p+r টাইপ করলেই হবে তবে ড় টাইপ করতে হলে Shift এ চাপ দিয়ে r এ চাপ দিতে হবে। আর যে কোন অক্ষরের পাশাপাশি র অক্ষরটি বসাবার আগে oতে চাপ দিয়ে তারপর r e চাপ দিতে হবে, নতুবা অহেতুক র রফলাতে বদলে যাবে। সেই ভাবে যুক্ত অক্ষর না চাইলে আগের অক্ষরটির পরে o চাপ দিয়ে অন্য অক্ষরটি বসাতে হবে। ঁ চন্দ্র বিন্দুর ব্যবহার করতে হলে shift চেপে 6 চাপতে হবে। যেমন= c+h+shift+^+d= চাঁদ।

t= ত th = থ আবার স shift t = T এবং shift th= ঠ।

যারা তাদের পিসিতে বাংলা দেখতেই পান না তারা  এই সাইট থেকে ফন্ট ফিক্সার ডাউনলোড করে নিন [তবে এর আগে সুলাইমানি লিপি আপনার পিসিতে ইন্সটল করতে হবে, যাদের উইন্ডোস ৭ বা তার উপরে আছে তাদের ইউন্ডোসে সুলাইমানি লিপি না থাকলেও বাংলা অন্য ফন্ট দেয়া আছে। যাদের নাই তাদের ডাউন লোড করে ইন্সটল করতে হবে, তবে অভ্র ডাউন লোড করলে এর সাথে সকল সহায়ক ফন্ট এমনিতে চলে আসে।]  এর পর  আপনার পিসিতে ইন্সটল করুন।এর পর একটি বক্স আসবে সেখানে আপনি সুলাইমান লিপিকে আপনার ডিফল্ট ফন্ট করে দিন। এবার উইন্ডোস রিস্টার্ট করুন। ব্যাস কাম শেষ ধুমসে মাতৃভাষায় মনের ভাব প্রকাশ করে যান।

৩য় পদ্ধতি:
সব চেয়ে মজার! আপনি যা বলবেন তা লিখা হয়ে যাবে মানে ভয়েস টু টেক্সট।
সে জন্য এই লিংকে যাবেন এবং  ডান পাশে   Language option এর  drop-down Box থেকে  “Bangla বাংলাদেশী” সিলেক্ট করবেন।  আপনার Microphone  access চাইবে  Allow? Yes  করবেন।
বস্,  এখন কথা বলতে  থাকুন লিখা শুরু হবে।  লিখা গুলো কপি করে MS Word, Email or Facebook যেখানে ইচ্ছা ব্যবহার  করতে পাবেন।
তবে খেয়াল রাখবেন Voice to Text করতে চাইলে সবসময়  ক্রম (Chrome) ব্রাউজার  ব্যবহার করতে হবে ।

এ ভিডওটি দেখলে বুঝতে পারবেন কত সহজে বাংলা ভয়েস টু টেক্সট টাইপ করা যাবে।

 

আশা করি আপনার যদি ইচ্ছা শক্তি থাকে তাহলে অল্প সময়ের মধ্যে তা আয়ত্ব করতে পারবেন । 
ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন। বুঝতে কোন অসুবিধা হলে munim2000@yahoo.com or info@songlapblog.com এ ইমেইল করে জেনে নেন। অথবা এইখানে দ্বিধাহীন চিত্তে প্রশ্ন করতে পারেন।

ধন্যবাদ।


Comments

বাংলা লিখার টিউটরিয়েল — 6 Comments

  1. ইউনিকোড ছাড়া প্রচলিত বিজয় বা অন্য কোন ফন্টে বাংলায় লেখা টেক্সট ইউনিকোডে পরিবর্তনের জন্য নিম্নের ওয়েব সাইটের কনভার্টার পেইজে দ্বিতীয় বক্সে কপি করুন ও দ্বিতীয় বক্সের উপরে এটি কোন ধরনের টেকস্ট সেটি সিলেক্ট করুন । এরপরে ‘Convert to Unicode’ বাটনটি চাপুন , আপনার ইউনিকোড টেক্সটটি পেয়ে যাবেন উপরের ইউনিকোড এডিটরে । তারপর তা কপি করে ব্লগে পোষ্ট লেখার বক্সে পেইষ্ট করে লিখা পাবলিশ করতে পারবেন। সে কনভার্টার এখানে পাবেন।
    http://songlapblog.com/স্বাগতম/88-2/বিজয়-ফন্টে-টাইপ-করা-লিখা-ক

    • ভাই যত সহজে মনে করা হয় কনভার্ট আসলে তত সহজ নয় বিষয়টি! কনভার্টের পরও ম্যানুয়েলি অনেক শব্দ কারেকশন করতে হয়। যা অনেক ঝামেলার বিষয়। এর চেয়ে সব চেয়ে সহজ হলো অভ্রদিয়ে লেখা। যাদের অভিজ্ঞতা নাই তারা স্বাভাবিক শংকিত হবেন, কিন্তু একবার অভ্র ট্রাই করলে তাদের সব ভুল ভেঙ্গে যাবে বলে আমি মনে করি। ধন্যবাদ।

  2. I don’t really think that you managed to make the blog user friendly, I would request you to add ‘Bijoy’ version to write posts in Bangla, that would make your blog more friendly and blogger’s like me will find it easier to write and post their writings.
    Thanks
    Zia/UK

    • ভাই দুঃখিত! ইন্টারনেট বিজয় ফন্ট গ্রহণ করেনা, ইন্টারনেটের জন্য ইউনিকোড ফন্ট দরকার হয়। আর বিজয় দিয়ে টাইপ করে সেটিকে আবার ইউনিকোডে কনভার্ট করেই তবে পোস্ট করতে হয়। এর চেয়ে খুব কম ঝামেলায় অভ্র দিয়ে ইংরেজি কিবোর্ড দিয়ে অতি সহজে টাইপ করা যায়। আপনি করে দেখুন। তারপর রায় জানানা। ধন্যবাদ।

মন্তব্য দেখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *