এনালগ থেকে ডিজিটাল ডাকাতের খপ্পরে ব্যাংক ব্যবস্থা

1308 জন পড়েছেন

একটি মিথ প্রচলিত আছে আমাদের দেশে। এনালগ জমানায় যে কটি ব্যাংক লুট হয়েছিল তার বেশীর ভাগই নাকি করেছে সে সময়ের নামি দামি হুমরা-চোমারার আন্ডা-বাচ্চারা। এ ডিজিটাল জমানায় আজও মনে হয় সেই স্বভাব রয়ে গেছে তাদের বংশধরদের মধ্যে। ডিজিটাল কায়দায় শুরু হয়েছে ব্যাংক লুটের মহাউৎসব। এনালগ পদ্ধতিও বাদ নাই। শেয়ার মার্কেট হর্লমার্ক কেলেংকারী, অতিসম্প্রতি এটিএম বুধ আক্রমন আর এইতো সেদিন রিজার্ভ লুট। চলছে এনালগ আর ডিজিটালের জগাখিচুরী ডাকাতি। এটিএম বথু আক্রমন দিয়ে ডিজিটাল ডাকতরা শুরু করেছে তারপরপরই এই রিজার্ভ ডাকাতি। ডিজিটাল ডাকতরা আস্তে আস্তে সক্রিয় হচ্ছে। সবচেয়ে আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে এর সাথে নাকি জড়িত সরকারের রাঘব বোায়ালরা। সেই এনালগ যুগের মত। এখনকার নতুন মিথ বংশ পরম্পরায় ব্যাংক ডাকতি এনালগ থেকে ডিজিটালে উত্তরণ।

বর্তমান সরকার আন্তরিকতার সাথে বিষয়টি নিয়ে ভাবেছে এটাই আশার কথা। একজন গভর্নর পদত্যাগ করেছেন। ডেপুটি দুইজন বরখাস্ত। সচিব ওসএসিডি এইতো অবস্থা।

কিন্তু প্রধানমন্ত্রী একজন অভিযুক্তকে তদন্ত শেষ হবার আগেই সততার নিদর্শন বলে সার্টিফাই করছেন বিষয়টি সত্যই বিচিত্র! আবার ফটোতে দেখলাম তিনি তার পদত্যাগে চোখ মুছছেন। এখন কি তার দূর্বলতার সময়। তাকে কঠোর হাতে দুষ্টের দমন করতে হবে। কেন করছেন তিনি এমন?

সবচেয়ে বড় কথা একজন গভর্নর একটা ঘটনার পর পদত্যাগ করলেন অথচ অনেক অর্থ কেলঙ্কারীর খল নায়ক অর্থমন্ত্রী তার পদে এখনো বহাল। সত্যই সেলুকাস! কি বিচিত্র এই দেশ। রিজার্ভের অর্থ চলে যায় অর্থমন্ত্রী জানেনা- এই ব্যর্থতা দায় কি সুন্দর এরিয়ে গেলেন তিনি। এই লজ্জা রাখি কোথায়?

1308 জন পড়েছেন

আতা স্বপন

About আতা স্বপন

আমি একজন অতি সাধারন মানুষ। আমি একজন মুসলিম। আমি একজন বাংলাদেশী। আমি আমার ধর্ম ও আমার দেশ কে ভালবাসি। আমি আমার দেশের সকল শ্রেনী পেশা ও ধর্মের লোকদের ভালবাসি। আমি ভাল লোকদের পছন্দ করি। নিজে ভাল হতে চাই।

Comments are closed.