ভালবাসা দিবস নয় -ভালবাসতে চাই পবিত্র মন

1801 জন পড়েছেন

আমরা আজ নৈতিকতার দিক থেকে এতটা নিস্ব হয়ে গেছি যে ভালবাসার জন্য দিবস খুজতে হয়। ভালবাসা সার্বজনিন বিষয়। ভালবাসার উপরই দুনিয়ার সবকিছু নিহিত। রকম ফেরে ভালবাসা রুপ বদলায় মাত্র তার গুরত্ব আর চাহিদা বদলায় না। আজ ভালবাসা শুধু একটি বিষেয়েই আটকে আছে। নারী পুরুষের জৈবিক চাহিদার মধ্যেই।অন্য রুপগুলো আজ গুরুত্বহীন যেন। ভালবাসার প্রকাশ করার জন্য দিবস নয় দরকার পবিত্র মন। যার পবিত্র মন আছে সেই ভালবাসতে পারে। সবসময় । সকল সৃষ্টিকেই সে উজার করে ভালবাসে। আর সেটাই সত্যিকারের ভালবাসা।১৪ তারিখে ফুল কিনে প্রিয়সীকে ভালবাসা জানাতে যে খরচটা হল তা যদি একটি গরিব পথ শিশুকে ভালবেসে খরচ হত তবে তার একদিনের অন্নে সংস্থান হতো। বা তার বস্রের সন্ধান হতো। যদি সেই খরচটা্ কোন গরীব মেধাবী ছেলেকে ভালাবেসে তার পড়ার জন্য হতো কত ভাল হতো। ভালবাসা কি শুধু নারী পুরুষের আকর্ষনটাই? স্রষ্টাকে ভালবাসা এটাওতো আছে। সৃষ্টিকে ভালবাসা এটাও আছে। প্রত্যেকটি ধর্মই স্রষ্টাকে ভালবাসার কথা বলে। কই কাউকেতো আজ দেখলাম না যার যার ধর্মকে ভালবেসে বিশেষ কিছু করতে। খালি নারীিকে ভালবাস। কারন সেখানেতো যৌনাতা আছে । অবধ মেলামেশার মজা। কত বোকা আমরা । আমি আজ ভালবাসার নামে হয়োতো কোন মেযেকে নিয়ে ফুর্তি করছি ঠিক অন্যকেউ হয়োতো আমার বোনটির সাথেও তাই করছে। একটুও ভাবছি না। এটাোতা ভালবাসা নয়। এর নাম সর্বনাশ। যৌবনশক্তির বিকৃত প্রকাশ। নারী পুরুষ এর যে আকর্ষন যে ভালবাসা এটা বিয়ের আগে হতে পারে । এ অবস্থা হলে তাকে বিয়েতে রুপন্তার করতে হবে। এরফলে ভালবাসা পূর্ণতা পাবে। আমাদের দেশে আগেও বিভিন্ন সময় নারী পুরুষের অবাধ মেলামেশা হয়েছে ভালবাসার নাম দিয়ে। কিন্তু তা এতটা অশ্লিল ভাবে দিবস আকারে প্রকাশ্য ছিল না। এইতো কয়বছর হল যায় যায় দিন পত্রিকার সম্পাদক শফিক রহমান (তার প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলছি) তার পৃষ্ঠপোসকতায় আর প্রচার প্রচারনায় এই কুসংস্কৃতি আমাদের দেশে আমদানি করা হয়েছে। আজ ভালবাসা দিবস নাম দিয়ে মা বাবাদেরও এর মধ্যে সামিল করে ছেলেমেয়েরা স্বাভাবিক করে ফেলেছে নারী পুরুষের বিয়ে পূর্ব অবাধ মেলাশাকে। মানুষ স্বভাবতই বিপরীত লিংগের প্রতি এমেনিতেই আসক্ত হয়। এটা স্বাভাবিক। এই স্বাভাবিকতা যাতে অস্বাভাবিক না হয় সে চেষ্টা করা দরকার ছিল। তা না করে বরং উস্কে দেয়া হয়েছে। এর কু প্রভাব থেকে কারো নিস্তার নেই। সবারই ছেলেমেয়ে মা বোন আছে। এ কথাটি খেয়াল রাখতে হবে। বাঁচতে হলে পবিত্র জীবনে ফিরে আসতে হবে। ভালাবাসায় সৃষ্টি -ভালবাসায় ধ্বংস -ভালবাসা পবিত্র -ভালোবসাই সর্বনাশ। পরমকরুনা ময় সবাইকে সহি বুঝ দান করুন। এটাই প্রত্যাশা।

1801 জন পড়েছেন

আতা স্বপন

About আতা স্বপন

আমি একজন অতি সাধারন মানুষ। আমি একজন মুসলিম। আমি একজন বাংলাদেশী। আমি আমার ধর্ম ও আমার দেশ কে ভালবাসি। আমি আমার দেশের সকল শ্রেনী পেশা ও ধর্মের লোকদের ভালবাসি। আমি ভাল লোকদের পছন্দ করি। নিজে ভাল হতে চাই।

Comments are closed.