মানবতার জয়গান

3816 জন পড়েছেন

আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ছিলেন একাধারে দ্রোহের কবি, সাম্য-শান্তির কবি, মনবতার কবি, প্রেমের কবি। দেশাত্নবোধ, খোদা ভক্তি, তারুণ্যের জাগরণ কি নেই তাঁর গানে ও কবিতায়? সবকিছু ছাপিয়ে তাঁকে যেভাবে দেখি তা হল; সাম্য-শান্তির পাশাপাশি মানবতাকে তিনি সকল কিছুর উর্দ্ধে স্থান দিয়েছেন।

‘কান্ডারী হুশিয়ার’ কবিতায় যেমন তিনি বলেছেন – “হিন্দু না ওরা মুসলিম? ওই জিজ্ঞাসে কোন জন? কান্ডারী বল, ডুবিছে মানুষ, সন্তান মোর মা’র….”অথবা ‘মানুষ’ কবিতায় যেমন; “গাহি সাম্যের গান- মানুষের চেয়ে বড় কিছু নাই, নহে কিছু মহীয়ান….” ইত্যাদি।

ভূপেন হাজারীকা বহু মানবতা ও সাম্যের গান গেয়েছেন…. তাঁর বিখ্যাত গান – ‘মানুষ মানুষের জন্যে’; বল কি তোমার ক্ষতি, জীবনের অথৈ নদী, পার হয় তোমাকে ধরে. দূর্বল মানুষ যদি, মানুষ যদি সে নাহয় মানুষ দানব কখনো হয়না মানুষ ….

তেমনি যুগে যুগে ধর্মনেতা থেকে শুরু করে নিবেদিত সবাজকর্মী, শিল্পী কবি সাহিত্যিক অনেকের মুখেই মানবতার জয়ধ্বনী উচ্চারিত হয়েছে। কিন্তু এমন ভাবে সাম্য ও মানবতার কথা শুনেছেন কি?

“A man you’re neither Hindu nor Muslim
Let it be your identity; great and eternal
Discuss the false racial origin
Don’t live in the darkness my brother
Everybody is man
And you’ve got your same position with them.

যা বাংলা করলে দাঁড়ায় অনেকটা এমন –
মানুষ তুমি নও কো তুমি হিন্দু মুসলমান
এই পরিচয় হোক তব শাশ্বত চীর মহান
অসার আলীক জাত বিচারে
থেকো না ভাই অন্ধকারে
সবাই মানুষ সবার মাঝে তোমার অবস্থান।

পাঠকদের জ্ঞাতার্থে বলছি; মূল লেখাটি আমার নয় কিন্তু এর রচয়ীতা কে বা কোথা থেকে পেয়েছি তা আমি জানি না। আপনারা কেউ জানেন কি? কারো জানা থাকলে দয়া করে জানাবেন। তবে সেই ছাত্রজীবনে স্বাধীনতার উত্তাল সময় থেকেই মনের মধ্যে কথাগুলো এমন ভাবে গেঁথে আছে যে দীর্ঘ চুয়াল্লিশ বছরে এর একটি বর্ণও ভুলিনি।

যেমন ভুলিনি পাঠ্য বইয়ে পড়া, গ্রীক দার্শনীক সক্রেটিসের শেষ বিদায়ের আগে হ্যামলক্ বিষের পেয়ালা হাতে ভক্তবৃন্দের প্রতি দেয়া তাঁর শেষ উক্তি – “The hour of departure has arrived, we go our ways; I to die you to live, which is better only God knows.”

জীবনের প্রতিটি স্তরে অবচেতন মনে কিছুতেই ওই ‘মটো’টুকুর সতর্ক উপস্থিতি মুছতে পারি না। এর ফলে আমার কষ্ট যাতনার অবধি নেই তবু ত্যাগ করতে পারিনি। নিজে হিংসা-বিদ্বেষ জয় করা কোন অতিমানব নই তবু, স্বার্থপরতার এই জগতে কোন মানুষ আমার কোন বড় ক্ষতি করলে ভুলেও আমি তার কোন ক্ষতির কথা ভাবতে পারি না। জীবনের উৎকর্ষতা বিধানে ও মনুষত্বের ঝান্ডাকে সমূন্নত রাখতে আমার ন্যূনতম চেষ্টা অব্যাহত থাকবে আশা করি।

লেখক পাঠক সকল বন্ধুর প্রতি বিনীত আহ্বান; আসুন আমাদের রচনায় বেশী বেশী মানবতার জয়গান করি।

সবাইকে অনেক ধন্যবাদ।

মানবতার জয় হোক

Facebook Comments

3816 জন পড়েছেন

অনিরুদ্ধ বুলবুল

About অনিরুদ্ধ বুলবুল

ব্যক্তির সমষ্টিই সমাজ। আমি সেই সমাজেরই অংশ। যে সমাজে বাস করছি সেই সমাজের উন্নয়ন আমার স্বপ্ন। সমাজের যেকোন অনিয়ম অসংগতি আমাকে খুব কষ্ট দেয়। ইচ্ছা হয়; সুযোগ পেলে সমাজটাকে বদলিয়ে একটা সুন্দর সমাজ গড়ে তুলি। সমাজের প্রতি সেই দায়বদ্ধতা থেকেই নিজের কিছু ইচ্ছা, অভিপ্রায় ও মতামত উপস্থাপন করে সমমনা পাঠকেদের সাথে তা শেয়ার করার মানসে মাঝে মাঝে কিছু লিখি। তাতে সমাজের সামান্যতম উপকার হলেও নিজেকে ধন্য মনে করি।

মন্তব্য দেখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *