বাঁশি চাই- বাঁশির গান চাই- সুর চাই!

1486 জন পড়েছেন

আমি বাঁশি চাই- বাঁশির গান চাই- সুর চাই!
সে সুরে অমরত্বের গুপ্তধন চাই-

কারণ -অস্তিত্ব বিনাশের পরও এ বাঁশি বিলাপ করে যায়!!!

প্রাসাদ ছেড়ে বনরাজিতে তুমি কি কখনো ঘর বানিয়েছিলে!

গিরিশৃঙ্গ, পাহাড় তুমি কি কখনো ডিঙ্গিয়ে ছিলে !

সুগন্ধি জলে গোসল করে; সূর্যের কিরণে কি কখনো

শরীরটিকে শুকিয়েছিলে ! ভোরে নির্মল আকাশ নিচে বসে কখনও কি

মার্টিনির স্বাদ নিয়েছিলে ? গোধূলিতে দ্রাক্ষাকুঞ্জে স্বর্ণের ঝাড়বাতির গুচ্ছের

পাশে কি কখনো একাকী বসেছিলে ?

আমি বাঁশি চাই- বাঁশির গান চাই- সুর চাই!
সে সুরে অমরত্বের গুপ্তধন চাই-

কারণ -অস্তিত্ব বিনাশের পরও এ বাঁশি বিলাপ করে যায়!!!

মুক্ত আকাশের নিচে ঘাসের উপর নিশিযাপনের বিছানা কি কখনো বিছিয়েছিলে ?

বৈকালিক বাতাসে আকাশকে চাদর বানিয়ে কি কখনো শরীরে জড়িয়ে ছিলে ?

বন্ধু -যদি এই সব না করে থাকো তাহলে বিদায় দাও অতীত! বরণ করো আগামী!

আমি বাঁশি চাই- বাঁশির গান চাই- সুর চাই!

সে সুরে অমরত্বের গুপ্তধন চাই-

সে গুপ্তধন আমার হৃদয়কে সমতল করবে

কারণ পাপ মোছনেরপর ও বাঁশি বিলাপ করে!

বন্ধু, ভুলে যাও অসুখের কষ্ট; ভুলে যাও আরোগ্যেরও আশা !

কারণ আমার এই কবিতা পানি দিয়ে লিখা – মানুষের কবিতা।

1486 জন পড়েছেন

মুনিম সিদ্দিকী

About মুনিম সিদ্দিকী

ব্লগে দেখছি অন্য সহ ব্লগাররা তাদের আত্মপরিচয় তুলে ধরেছেন নিজ নিজ ব্লগে! কুঁজো লোকের যেমন চিৎ হয়ে শোয়ার ইচ্ছা জাগে তেমন করে আমারও ইচ্ছা জাগে আমি আমার আত্মপরিচয় তুলে ধরি! কিন্তু সত্য যে কথা তা হচ্ছে শুধু জন্মদাতা পিতা কর্তৃক আমার নাম আর পরিবারের পদবী ছাড়া আমার পরিচয় দেবার মত কিছু নেই! আমি এক বন্ধ্যা মাটি যেখানে কোন চাষবাস হয় নাই। যাক আমি একটি গান শুনিয়ে আত্মপ্রতারণা বর্ণনা শেষ করছি-
কত শহর বন্দরও পেরিয়ে চলেছি অজানা পথে – কালেরও নিঠুর টানে- আমার চলার শেষ কোন সাগরে তা তো জানা নাই! ধন্যবাদ।

Comments

বাঁশি চাই- বাঁশির গান চাই- সুর চাই! — ১ Comment