সাতাইশ ঈদগাহ রোড এ অনুষ্ঠিত হলো কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রমের বিশেষ সভা

277 জন পড়েছেন

“আপনার সচেতনতাই আপনার নিরাপত্তা”

এই শ্লোগান নিয়ে কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম, সাতাইশ টঙ্গী গাজীপুর এর উদ্যোগে ২৬ অক্টোবর ২০১৮ শুক্রবার এলাকায় নানাপ্রকার অসমাজি কার্যকলাপ, সন্ত্রাস ও মাদক প্রতিরোধে এক বিশেষ সভা সাতাইশ ঈদগাহ রোডে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নবগঠিত গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী পশ্চিম থানার সম্মানিত অফিসার ইনচার্জ জনাব এমদাদুল হক এবং আরো উপস্থিত ছিলেন ৫১ নং ওয়ার্ড গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নব নির্বাচিত সম্মানিত কাউন্সিলর জনাব আমজাদ হোসেন। অত্র এলাকার নানা শ্রেনীর পেশার মানুষ ও বাড়ির মালিকদের উপস্থিতিতে অতিথিদ্বয় সন্ত্রাস, মাদক ও অসমাজিককার্যকলাপ প্রতিরোধে দৃঢ় অঙ্গিকার ব্যাক্ত করেন।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন টঙ্গী পশ্চিম থানা অফিসার ইনচার্জ বক্তব্য রাখছেনঃ

টঙ্গী থানার সম্মানিত অফিস ইনচার্জ বলেন, মাদক সমস্য এখন কোন এলাকার একক সমস্যা নয়। এটা এখন জাতীয় সমস্যা। সরকার এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্স এ আ ছেন। তাই মাদক প্রতিরোধ যে কোন মূল্যে করতে হবে। এজন্য তিনি কমিউনিটি পুলিশের কার্যক্রমের ভুয়শি প্রসংসা করে এ কমিটি সহ উপস্থিত সকল মানুষের কাছে এ বিষয়ে পুলিশকে সহযোগীতা করার জন্য আহবান জানান। তিনি বলেন মাদক এমন ভাবে ছেয়ে গেছে যে তা স্কুলে পড়ুয়া ছেলেমেয়েদের কে পর্যন্ত আছর করেছে। স্কুলের ছেলেমেয়েরা স্কুল ফাকি দিয়ে এলাকার অলিতে গলিতে বসে নেশায় বুদ হয়ে থাকে। এতে মদদ দেয় এলাকার কিছু মাদক ব্যবসায়ী। তারা ভেবে দেখে না তাদের সন্তাও একদিন এর আছেড়ে পড়তে পারে।এদেরকে যেখানে পাবেন ধরিয়ে দিন। সবাই মিলে তাদের আটাকাবেন। মেট্রোপলিটন পুলিশকে খবর দিবেন। তারা আপনাদের পাশে সবসময় আছে ও থাকবে। নিজেদের আগে এ বিষয়ে সচেতন হতে হবে।উদ্যোগি হয়ে এগিয়ে আসতে হবে। সচেতনাতই আপনাকে এবং আপনার চারপাসকে নিরাপদ করবে।তিনি বলেন এমন অনেক বাবা মা আছেন যারা তাদের বখাটে সন্তানকে ঠিক পথে আনতে না পেরে থানায় বা সংশোধনাগার এ দিয়ে যান। তারা যদি আগে সচেতন হতেন এমনটা হতনা। সন্তনদের খোজখবর নিতে হবে। তাদের বন্ধুবান্ধবদের চিনতে হবে। কোথায় যায়? কি করে? এগুলো জানতে হবে।

তিনি আরেকটি বিষয়ে সবার দৃষ্টি আকর্ষন করেন তা হলো এলাকার প্রভাবশালীদের নিরব চাঁদাবাজী। যা এলাকায় নতুন বাড়ী নির্মাতাদের জন্য একটি যন্ত্রনা। ইট, বালু , সিমেন্ট এলাকার প্রভাব শালীদের কাছ থেকে কিনতে হবেই। দামও নেয় বেশী। তিনি এমন কাজ না করার জন্য তাদের সতর্ক করেন।
কাউন্সিলর সাহেব বক্তব্য রাখছেনঃ

৫১ নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর জনাব আমাজাদ হোসেন বলেন, কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রমের মাধ্যমে যে কোন প্রকার বেআইনি কাজ প্রতিরোধে তিনি সর্বদা পাশে থাকবেন। তিনি বলেন এ কার্যক্রমে যারা আছেন তারা প্রতিটি বাড়ির মালিককে একটি করে লাঠি ও বাঁশি দিবেন। তিনি আরো বলেন, যেখানেই মাদক আর সন্ত্রাস সেখানেই ঐক্যবদ্ধভাবে গর্জে উঠবেন আপনারা।আপনারা সচেতন হোন আমি আপনাদের সাথে আছি। সবধরনে সহযোগীতা আমি করব।
এর আগে কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রমের পক্ষ থেকে অতিথিদের ফুল দিয়ে বরন করে নেয়া হয়। ৫১ নং ওয়ার্ড নব নির্বাচিত কাউন্সিলর জনাব আমজাদ হোসেনকে বরন করে নেন কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রমের সভাপতি জনাব আবু তালেব স্বপন। টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব এমদাদুল হককে বরন করে নেনে সহ সভাপতি জনাব সোহারাব হোসেন টিপু । অনুষ্ঠানে শেষে সবাইকে আপ্যায়ন করা হয়। আপ্যায়নের দায়িত্বে ছিলেন- হিসাব রক্ষক জনাব আলী আশরাফ ও সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব হাজী ইলিয়াস। অনুষ্ঠান সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন সাধারণ সম্পাদক জনাব সোহেল লস্কর। আর অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মাও. কাজী হাফেজ মোঃ মোহম্মদ উল্লাহ ভূইয়া। এছাড়া সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন, সহ সাধারন সম্পাদক নাসির উদ্দিন মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক সেলিম রেজা , সহ হিসাব রক্ষক জনাব মনিরুল ইসলাম।এছাড়া উপদেষ্টাদের মধ্যে জনাব সেকান্দার আলী ও দেলোয়ার হোসেন বুদ্ধি ও পরামর্শ দিয়ে সহযোগীতা করেন। কাজীপাড়া কমিউনিটি পুলিশ ইউনিট থেকে সাধারন সম্পাদক জনাব জাহাঙ্গীর আলম ও উপদেষ্টা জনাব আঃ হাই আকন্দ ডিডি, এন.এস আই (প্রাক্তন), জনাব আঃ মান্নান মাষ্টার উপস্থিত ছিলেন। বিশিষ্ট ডিশ ব্যবসায়ী ও যুব লীগ নেতা মোস্তফা মিয়াও এ সভায় উপস্থিত হয়ে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানের কিছু ছবিঃ

কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম সাতাইশ এর যাত্রা ২০০৯ এ শুরু হয়ে ২০১৫ সালে পর্যন্ত ভালোভাবেই তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। ২০১৫ তে পুরাতন কমিটি বিলুপ্ত করে তৎকালিন ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর উপস্থিতিতে নুতন কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সদস্যদের কার্যক্রম নাম মাত্র এবং এর কার্যক্রমে ঢিলাঢালা ভাব থাকায় এ সুযোগে এলাকা সন্ত্রাস ও মাদকে ছেয়ে যায়। চুরি ডাকাতি বেড়ে যায় অস্বাভাবিক ভাবে। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য ৫১ নং ওয়ার্ডের নতুন কাউন্সিলর জনাব আমজাদ হোসেন এর উপস্থিতিতে এক জরুরী সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত সভায় কাউন্সিলর মহদয় সভায় উপস্থিত সকল গন্যমান্য ব্যক্তিদের সম্মতিতে পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত করে সাতাইশ ঈদগাঁহ রোড এলাকায় কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য নতুন করে উপদেষ্টা ও কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করেন। নব গঠিত কমিটি গত ০১.১০.২০১৮ ইং তারিখ থেকে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। এর ধারাবহিকতায় কমিটি এলাকায় থানা ও কাউন্সিলর এর উপস্থিতিতে এই সভার আয়োজন করে।

277 জন পড়েছেন

আতা স্বপন

About আতা স্বপন

আমি একজন অতি সাধারন মানুষ। আমি একজন মুসলিম। আমি একজন বাংলাদেশী। আমি আমার ধর্ম ও আমার দেশ কে ভালবাসি। আমি আমার দেশের সকল শ্রেনী পেশা ও ধর্মের লোকদের ভালবাসি। আমি ভাল লোকদের পছন্দ করি। নিজে ভাল হতে চাই।

Comments are closed.