পশ্চিমা রাজনীতি ও পশ্চিমা শিক্ষা কি একই?

55 জন পড়েছেন

পশ্চিমা রাজনীতি ও পশ্চিমা শিক্ষা, এ দুটির মাঝে পার্থক্য জানা প্রয়োজন। অনেকেই পশ্চিমা রাজনীতিকে খুব ভালোবাসেন, কিন্তু পশ্চিমা শিক্ষাকে সারাক্ষণ গালাগালি করতে থাকেন। অথচ, বিষয়টি উল্টো হবার প্রয়োজন ছিল।

যারা পশ্চিমা শিক্ষাকে দিনরাত গালাগালি করেন, তাঁরা আসলে পশ্চিমাদের শিখানো শব্দ দিয়েই পশ্চিমাদের গালাগালি করেন। আমরা নিজেদের ভাষায় পশ্চিমাদের বিরোধিতা করতে পারি না; এডওয়ার্ড সাঈদ বা নোয়াম চমস্কিদের থেকে আমাদেরকে শিক্ষা নিতে হয়।

পশ্চিমা রাজনীতি মুসলিমদের অনেক ক্ষতি করেছে, সুতরাং, পশ্চিমা রাজনীতির বিরোধিতা করা উচিত। কিন্তু পশ্চিমা জ্ঞান ও ভাষার বিরোধিতা করা মুশকিল। কেননা, পৃথিবীর সকল জ্ঞান ও ভাষা-ই আল্লাহর পক্ষ থেকে এসেছে।

পৃথিবীর যে প্রান্তে যে জ্ঞান-ই থাকুক না কেনো, তা মুসলিমদের হারানো সম্পদ। জ্ঞান কখনো পশ্চিমা বা পূর্বের হতে পারে না। জ্ঞান হলো ভিন্ন সভ্যতা বা অপরকে জানার একটি উপকরণ বা উপায়।

ইবনে সিনা, ইবনে খালদুন, আল বিরুনী সহ মুসলিম বিশ্বের যেসব বুদ্ধিজীবীকে নিয়ে আমরা আজ গর্ব করি, তাঁদেরকে আমরা পশ্চিমা শিক্ষা ও ভাষার কারণেই চিনতে পেরেছি। সেলজুক বা উসমানী খেলাফতের সময়কার হাজার হাজার বিজ্ঞানী ও দার্শনিকের নাম-গন্ধও আমরা জানি না। কারণ, রাজনৈতিক শত্রুতার কারণে পশ্চিমারা তাঁদের অনেকেই গ্রহণ করেননি। পশ্চিমারা যাদেরকে গ্রহণ করেননি, এমন একজন দার্শনিক বা বিজ্ঞানীর নামও আমরা আজ জানি না।

আমাদের দেশের প্রথম আলো’রা পশ্চিমা রাজনীতির দালালী করেন, কিন্তু পশ্চিমা জ্ঞানের প্রতিনিধিত্ব করার যোগ্যতা তাঁদের নেই। প্রথম আলো’দের সাথে আমাদের বিরোধিতার জায়গা এটাই।

এখানে একটি জিনিস ভালোভাবে লক্ষ্য করা প্রয়োজন। আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন, আর শয়তান পশ্চিমাদেরকে সৃষ্টি করেছে, বিষয়টি এমন নয়। আমাদের সবাইকে আল্লাহ তায়ালা সৃষ্টি করেছেন। পূর্ব যেমন আমাদের, পশ্চিমও আমাদের।

আল্লাহ তায়ালা বলেন –

وَلِلَّهِ ٱلْمَشْرِقُ وَٱلْمَغْرِبُ ۚ فَأَيْنَمَا تُوَلُّوا۟ فَثَمَّ وَجْهُ ٱللَّهِ ۚ إِنَّ ٱللَّهَ وَ‌ٰسِعٌ عَلِيمٌۭ

পূর্ব ও পশ্চিম আল্লারই। অতএব, তোমরা যেদিকেই মুখ ফেরাও না কেনো, সেদিকেই আল্লাহ বিরাজমান। নিশ্চয় আল্লাহ সর্বব্যাপী, সর্বজ্ঞ। [সূরা ২/বাকারা – ১১৫]
______

পৃথিবীর সকল জ্ঞানের মালিক হচ্ছেন একমাত্র আল্লাহ তায়ালা। সুতরাং, সকল জাতি ও গোষ্ঠী থেকে ভালো ও উপকারী জ্ঞানটা আমাদের অর্জন করা প্রয়োজন।

 

55 জন পড়েছেন

Comments are closed.